বেসরকারি হাসপাতালগুলোর জন্য মন্ত্রণালয়ের ৩ নির্দেশনা, না মানলে লাইসেন্স বাতিল।

নিজস্ব প্রতিবেদন, ঢাকা

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়,
সাধারণ রোগীদের চিকিৎসাসেবা সঠিকভাবে দেওয়ার উদ্দেশ্যে তিনটি নির্দেশনা দিয়েছে । ১১ তারিখ সোমবার স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ ইকবাল হোসেনের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই সব নির্দেশনা দেওয়া হয়।

 

নির্দেশনাগুলো নিম্মে দেওয়া হলো:
# ১. সকল বেসরকারি হাসপাতাল/ ক্লিনিকগুলোতে সন্দেহভাজন “কোভিড-১৯” রোগীদের চিকিৎসার জন্য আলাদা ব্যবস্থা থাকতে হবে।

# ২. সম্পূর্ন চিকিৎসা সুবিধা থাকা সত্ত্বেও জরুরি চিকিৎসার জন্য আগত কোনো রোগীকে চিকিৎসা না দিয়ে ফেরত দেওয়া যাবে না। রেফার করতে হলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের “কোভিড-১৯” হাসপাতাল নিয়ন্ত্রণ কক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে এবং রোগীর চিকিৎসার বিষয়টি সুনিশ্চিত করে তারপর রেফার করতে হবে।

#৩. যে সকল রোগী দীর্ঘদিন ধরে কিডনি, ডায়ালাইসিস‌ ও বিভিন্ন জটিল চিকিৎসা গ্রহণ করছেন, তারা “কোভিড-১৯” আক্রান্ত না হয়ে থাকলে তাদের চিকিৎসা আগের মত স্বাভাবিক নিয়মে অব্যাহত রাখতে হবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলেন, এসব নির্দেশনা কোন প্রতিষ্ঠান অমান্য করলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইন অনুসারে লাইসেন্স বাতিলসহ কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।