কিডনি নষ্ট না হওয়ার কিছু গুরুত্বপূর্ণ টিপস।

মানুষের শরীরের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হলো কিডনি। একে সুস্থ রাখা খুবই জরুরি। কিডনি সমস্যায় পড়লে বা কিডনিতে কোনো রকম সংক্রমণ হলে শরীরে একের পর এক নানান জটিলতা দেখা দিবে।

তাই শরীরের সার্বিকভাবে সুস্থতা বজায় রাখতে কিডনির যত্ন নেওয়া অত্যান্ত জরুরি। এ ক্ষেত্রে কয়েকটি নিয়ম মেনে চললে আল্লাহর রহমতে তেমন কোনো বিপদের আশঙ্কা থাকে না। যেমন-

০১. পরিমান মতো বিশুদ্ধ পানি পান করতে হবে।

০২. লবণ বা এসিডিক খাবার বেশী খাওয়া যাবে না। কামরাঙ্গা, বিলেম্বু, লেবু, জাম্বুরা ইত্যাদি এসিডিক ফল অতিরিক্ত পরিমান খাওয়াও ক্ষতিকর তাই পরিমাণ মতো খেতে হবে।

০৩. সময় মত প্রসাব করে ফেলতে হবে, কোনমতে প্রসাব আটকিয়ে রাখা যাবে না।

০৪. প্রসাবে ইনফেকশন হলে সময় মত চিকিৎসা করে ফেলতে হবে।

০৫. মাছ মাংস বা আমিষ জাতীয় খাবার বেশি করে খাওয়ার চেষ্টা করতে হবে।

০৬. অনিয়ন্ত্রিত ব্লাড সুগার ও উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে।

 

০৭. মাথা ব্যাথা, সর্দিকাঁশি ইত্যাদি ছোট খাটো কারনে প্রায়ই প্যারাসিটামল, ব্যাথানাশক, এন্টিবায়োটিকসহ ডাক্তারের পরামর্শ ব্যতীত এ ধরনের ওষুধ সেবন করা থেকে বিরত থাকতে হবে, এবং সারা বছর যাবৎ নানান রকম গ্যাষ্ট্রিকের ওষুধ, ভিটামিন, যৌন উত্তেজক ওষুধ খাওয়া থেকেও বিরত থাকতে হবে।

০৮. পরিমান মত ঘুম ও বিশ্রাম নিতে হবে। প্রয়োজনের অতিরিক্ত ঘুমানো কিডনি এবং স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

৯. ব্যায়াম বা পরিশ্রম নিয়মিত করতে হবে।

১০. মাদক সেবন এড়িয়ে চলতে হবে।

১১. কোক, টাইগার, স্পিড, জুস ইত্যাদি নানান নামের, নানান রঙের ক্যামিকেলযুক্ত ড্রিংস গ্রহন করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

১২. হাতুড়ে বা অজ্ঞ কবিরাজ, হোমিও বা এলোপ্যাথি ডাক্তারের ঔষধ সেবন করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

সুস্বাস্থ্য আল্লাহর নেয়ামত ও আমানত। সুশৃঙ্খল জীবন যাপন করুন, স্বাস্থ্যসম্মত ন্যাচারাল খাবার গ্রহন করুন, পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করুন, ইনশাআল্লাহ সুস্থ থাকবেন।